LYRIC

শিরোনামঃ স্বপ্নের কফি হাউজ (Coffee House 2)
কথাঃ শমীন্দ্র রায় চৌধুরী
কন্ঠঃ মান্না দে

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

নিখিলেশ লিখেছে প্যারিসের বদলে এখানেই পূজোটা কাটাবে,
কী এক জরুরী কাজে ঢাকার অফিস থেকে মইদুলকেও নাকি পাঠাবে।
একটা ফোনেই জানি রাজি হবে সুজাতা আসবে না অমল আর রমা রায়
আমাদের ফাঁকি দিয়ে কবেই তো চলে গেছে ওদের কখনো কি ভোলা যায়?

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

ওরা যেন ভাল থাকে একটু দেখিস তোরা শেষ অনুরোধ ছিল ডিসুজার
তেরো তলা বাড়িতে সব কিছু আছে তবু কিসের অভাব যেন সুজাতার।
একটাও তার লেখা হয়নি কোথাও ছাপা অভিমান ছিল খুব অমলের
ভাল লাগে দেখে তাই সেই সব কবিতাই মুখে মুখে ফেরে আজ সকলের।

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

নাম যশ খ্যাতি আর অনেক পুরষ্কার নিখিলেশ একই থেকে গিয়েছে,
একটা মেয়ে বলেই সুজাতা বিয়ে যে তার দু হাত উজাড় করে দিয়েছে।
সবকিছু অগোছালো ডিসুজার বেলাতে নিজেদের অপরাধী মনে হয়,
পার্ক স্ট্রীটে মাঝরাতে ওর মেয়ে নাচে গায় ইচ্ছে বা কারো কোন শোকে নয়।

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

কার দোষে ভাঙল যে মইদুল বলেনি জানি ওরা একসাথে থাকে না
ছেলে নিয়ে মারিয়াম কোথায় হারিয়ে গেছে কেউ আর কারো খোঁজ রাখে না।
নাটকে যেমন হয় জীবন তেমন নয় রমা রায় পারেনি তা বুঝতে
পাগলা গারদে তার কেটে গেছে শেষ দিন হারানো সে চেনা মুখ খুঁজতে।

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

দেয়ালের রং আর আলোচনা পোস্টার বদলে গিয়েছে সব এখানেই
তবুও প্রশ্ন নেই যে আসে বন্ধু সেই আড্ডা তর্ক চলে সমানেই।
সেই স্বপ্নের দিনগুলো বাতাসে উড়িয়ে ধূলো হয়তো আসছে ফিরে আজ আবার
অমলের ছেলেটার হাতে উঠে এসেছে ডিসুজার ফেলে যাওয়া সে গীটার।

স্বপ্নের মত ছিল দিনগুলো কফি হাউসেই আজ আর নেই।
জীবনে চলার পথে হারিয়ে গিয়েছে অনেকেই আজ আর নেই।

Comments

SHARE

ADVERTISEMENT